আজ সোমবার,৩রা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ,১৭ই মে, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ,বিকাল ৫:৫৬

ব্রেকিং নিউজ

সরকার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে জনগণকে বাদ দিয়ে : ফখরুল

News

অলাইন ডেস্ক রির্পোটঃ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার দেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে জনগণকে বাদ দিয়ে। সরকারের সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানগুলোতে মুক্তিযোদ্ধাদের কোনো অবস্থান নেই বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

আগামী ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের বিষয়টি উল্লেখ করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা সব সময় দেশী-বিদেশী বন্ধুদের স্বাগত জানাই। সুবর্ণজয়ন্তীতে আমরা তাদেরকে অবশ্যই স্বাগত জানাবো। কিন্তু দুর্ভাগ্য হচ্ছে সরকার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করছে জনগণকে বাদ দিয়ে। জনগণ সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সরকারের সুবর্ণজয়ন্তী অনুষ্ঠানগুলোতে মুক্তিযোদ্ধাদের কোনো অবস্থান নেই। এমনকি রাজনৈতিক দলগুলোর কোনো অবস্থান নেই। শুধু বিদেশী মেহমানদের নিয়ে এসে দেখানো হচ্ছে, বলানো হচ্ছে উন্নয়নের লহরী বয়ে যাচ্ছে।

এ সময় তিনি মোদির আগমনের উদ্দেশ্য নিয়েও প্রশ্ন তুলেন। বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী পালন করতে আসছেন, নাকি পশ্চিমবঙ্গে যে নির্বাচন হচ্ছে সেই নির্বাচনের প্রচারণা চালাতে আসছেন? মূলত তার এই সফরের লক্ষ্য হচ্ছে, সেই মন্দিরগুলো পরিদর্শন করা যেগুলোতে তাদের অনুসারী রয়েছেন। তাদের পশ্চিমবঙ্গে যে ভোট রয়েছে, তার জন্য তিনি চেষ্টা করছেন। এটা পত্রিকায় লেখা হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গ, ভারতের পত্রিকা ও আমাদের দেশের পত্রিকায় সে ধরনের ইঙ্গিতই আমরা পাচ্ছি।

তিনি বলেন, আমরা বরাবরই বলে আসছি, ভারতের সাথে সম্পর্ক আরো উন্নত করতে হলে বাংলাদেশের সাথে ভারতের যে অভিন্ন নদীগুলো রয়েছে তার হিস্যা মীমাংসা হওয়া উচিত। সীমান্ত হত্যা বন্ধ হওয়া উচিত। এটা অমানবিক, পৃথিবীর কোনো দেশে এটা আছে কিনা জানি না। সরকার বলে ভারতের সাথে বাংলাদেশের এত বন্ধুত্ব সম্পর্ক, অথচ এই সমস্যার সমাধান করতে পারে না।

ভারতের সাথে কানেক্টিভিটিতে বাংলাদেশের কী লাভ হচ্ছে তা জনগণের কাছে স্পষ্ট করার দাবি মির্জা ফখরুলের।

তিনি বলেন, ভারতের সাথে পানির সমস্যা সমাধান হচ্ছে না। ফেনীর পানিও তারা একতরফাভাবে নিয়ে গেছে। আমরা এখনো প্রত্যাশা করি, বাংলাদেশ সরকার আমাদের দাবিগুলোকে সঠিকভাবে ভারতের কাছে উপস্থাপন করে সমাধান করবে।

     More News Of This Category